SSD মানে কী?

 আমরা যখন কোনো কম্পিউটার কিনবো বলে প্ল্যান করি তখন আমরা SSD স্টোরেজ টাইপের কম্পিউটার কিনবো নাকি HDD স্টোরেজ টাইপের কিনবো তা ঠিক করতে পারি না । এখানে যেহেতু SSD নিয়ে কথা বলা হচ্ছে তাই জেনে নেওয়া যাক এসএসডি (SSD) কি? কম্পিউটারে SSD কি কাজ করে।




SSD কি? SSD এর কাজ ও সুবিধা:

এসএসডি (SSD) এর পূর্ণরূপ হচ্ছে Solid state drive । SSD হলো কম্পিউটারে ব্যাবহৃত নতুন প্রজন্মের স্টোরেজ ডিভাইস । SSD একই রকম ভাবে হার্ড ডিস্ক ড্রাইভের মতো কম্পিউটারে ডাটা গুলিকে স্টোর করে রাখে।

কিছু বছর আগে কম্পিউটারগুলোতে হার্ড ডিস্ক ড্রাইভ ব্যবহার করা হত এবং বর্তমানেও ব্যাবহৃত হয় । এই পুরানো প্রযুক্তি ব্যাবহারের ফলে কম্পিউটার খুব ধীর গতিতে কাজ করে ।

কিন্তু সেই সময়েও SSD প্রযুক্তি চালু হয়েছিল , তবে তা ব্যায়বহুল ছিল। বর্তমানে SSD র দাম আগের তুলনায় অনেক সস্তা হয়েছে । তাই বেশিরভাগ কম্পিউটারে এখন পুরানো প্রযুক্তির হার্ড ডিস্ক ড্রাইভের পরিবর্তে নতুন প্রযুক্তির ফ্ল্যাশ ভিত্তিক স্টোরেজ SSD ব্যবহার করা হচ্ছে । এই প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে কম্পিউটারের গতি আগের থেকে অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে।

কয়েক দশক ধরে ডেটা মূলত যান্ত্রিক হার্ড ড্রাইভে সংরক্ষণ করা হত । এই হার্ড ডিস্ক ড্রাইভগুলির (HDD) ভিতরে একটি চলমান ডিস্ক থাকে যার নাম হল Platter , যেখানে ডেটা স্টোর হয় । এই Platter এর স্পিড যত হবে read এবং right এর স্পিড তত হবে । ঠিক এই জন্যই HDD তে লেখা থাকে 5201 RPM ( Round per minuit ) , 7200 RPM ইত্যাদি । বিভিন্ন হার্ড ডিস্ক ড্রাইভের স্পিড বিভিন্ন রকমের হয় ।

অন্যদিকে SSD সুম্পূর্ণ আলাদাভাবে কাজ করে। SSD তে একটি সাধারণ মেমোরি চিপ থাকে যার নাম ন্যানো ফ্ল্যাশ মেমোরি । যেখানে HDD র মত কোনো মুভিং পার্ট নেই ।

SSD প্রযুক্তি 1950 সালে শুরু হয়েছিল এবং 1970 ও 1980 এর দশকে উচ্ছ ক্ষমতা সম্পন্ন সুপার কম্পিউটারে ব্যবহার হত । এছাড়া যেখানে হাই পারফরমেন্স প্রযুক্তির কাজ করা হত সেখানে SSD ব্যবহার করা হত ।

যাই হোক , এই প্রযুক্তি অত্যন্ত ব্যায়বহুল ছিল। দামের তুলনায় স্টোরেজ ছিল অনেক কম। সামরিক ও মহাকাশ ক্ষেত্রগুলিতে মাঝে মাঝে SSD ব্যবহার করা হত , তবে 1990 এর দশক পর্যন্ত কোনো সাধারণ ডিভাইসে ব্যবহৃত হত না।

90 এর দশকের গোড়ার দিকে হার্ডওয়্যার উদ্ভাবনের ফলে SSD র দাম কমতে শুরু করে। তবে ওই সময়ে SSD র আয়ু ও সাইজ নিয়ে কিছু সমস্যা ছিল। কিন্তু 2000 সালের পর থেকে SSD আরো উন্নত হল এবং মানুষের কাছে ধীরে ধীরে গ্রহণযোগ্যতা বাড়তে থাকল।

হার্ড ডিস্ক ড্রাইভ (HDD) এর তুলনায় কোনো এসএসডি (SSD) ভালো :

যেহেতু SSD এখন আগের থেকে সস্তা হয়ে গেছে তাই সাধারণ ব্যবহারকারী থেকে শুরু করে অফিস-আদালত ব্যবসার ক্ষেত্রে ও কম্পিউটারে SSD ব্যবহার করা হচ্ছে ।

বিপুল পরিমাণে ডেটা ও প্রোগ্রামিং নিয়ে যারা কাজ করেন সেখানে SSD ব্যবহারের ফলে কম্পিউটার খুব দ্রুত কাজ করে এবং ফাইল ট্রান্সফারের স্পিড ও বেশি হয়।

SSD ব্যবহারের সুবিধা হলো হার্ড ডিস্কের তুলনায় এর আয়ু অনেক বেশি। এছাড়া SSD আকারে অনেক ছোট হয় ।

গেমিং কম্পিউটার গুলিতে SSD ব্যবহারের ফলে কম্পিউটার দ্রুত গতিতে কাজ করে এবং বড় বড় গেমিংয়ের ফাইলগুলো তাড়াতাড়ি লোড হয়ে যায় ।

SSD খুব কম পাওয়ারে চলতে পারে। তাই যে কম্পিউটার বা ল্যাপটপে SSD থাকে সেখানে খুব কম পাওয়ার লাগে, এর জন্য ল্যাপটপের ব্যাটারির আয়ু বাড়ে ও ব্যাটারির ব্যাকআপ ভালো পাওয়া যায় ।

SSD ব্যবহারের ফলে কম্পিউটারের রিড এবং রাইট এর স্পিড ও বেশি হয় ।

SSD ব্যবহারের ফলে কম্পিউটার বুটিং হতে কম সময় নেয়, এবং অ্যাপ্লিকেশন গুলি খুব ফার্স্ট ওপেন হয় ।

SSD কত প্রকার হয় ও কি কি ?

যখন আমরা কোন দোকানে SSD কিনতে যাই তখন আমাদের SATA SSD, mSATA SSD, M.2 SSD এরকম কিছু নামের সম্মুখীন হতে হয় । এইগুলির মানে কি? সেই জন্য SSD কেনার আগে এইগুলো একটু জেনে নেওয়া দরকার ।

1 SATA SSD

SATA SSD গুলি দেখতে অনেকটা ল্যাপটপের হার্ড ডিক্সের মতোই। এই ধরনের SSD SATA কানেক্টরে কম্পিউটারের মধ্যে যুক্ত করা থাকে। এই ধরনের SSD গুলি সাধারণত নিম্নমানের হয় , তাই এই ধরনের SSD গুলির দাম তুলনামূলক ভাবে কম। সেইজন্য এই ধরণের SSD গুলি বাজারে বেশি পাওয়া যায় ।

2 mSATA SSD

এই ধরনের SSD গুলো SATA SSD র তুলনায় আকারে অনেক ছোট হয় । তাই একে micro-ssd ও বলা হয়ে থাকে। সাধারণত এই ধরনের SSD সব কম্পিউটারে লাগানো যায় না। তাই এই ধরনের SSD ব্যবহার করতে হলে কম্পিউটারে অবশ্যই m SATA পোর্ট থাকতে হবে।

3 M.2 SSD

m.2 SSD গুলি mSATA SSD র একটি আপডেটেড ভার্সান । এ ধরনের SSDগুলি অধিক ফাস্ট কাজ করে। m.2 SSD গুলি সাধারণ SSD র তুলনায় বেশি দ্রুত কাজ করে তাই এর দামও অনেকটা বেশি।

4 SSHD

এই ধরনের স্টোরেজ ডিভাইসকে পুরোপুরি SSD বলা যায় না । কারণ, এই ধরনের ডিভাইসে SSD ও HDD প্রযুক্তির মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে । তাই এই ধরনের স্টোরেজ ডিভাইসকে বলা হয় (Solid state hybrid drive) SSHD । SSD ও HDD এই দুটি প্রযুক্তির সংমিশ্রণে যেহেতু এটি তৈরি করা হয়েছে সেহেতু এখানে SSD র মত দ্রুত কাজ এবং HDD র মত অধিক ক্যাপাসিটি স্টোরেজ পাওয়া যায় ।

কারা SSD ব্যবহার করবেন আর কারা হার্ড ডিস্ক ড্রাইভ (HDD) ।

যে সব ব্যাবহারকারীদের স্টোরেজ সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ও বেশি রিড ও রাইট এর প্রয়োজন হয়না এবং ফাস্ট ডেটা ট্রান্সফারের ও প্রয়োজন নেই সেই সব ব্যাবহারকারীরা কম বাজেটের মধ্যে অধিক স্টোরেজ এর HDD ব্যবহার করতে পারেন ।

আপনার কাছে যদি ল্যাপটপ থাকে অথবা যদি একটি কম্পিউটার কিনবেন বলে ভাবছেন তাহলে আপনি SSD ও HDD কম্বিনেশন করে ব্যবহার করতে পারেন। অর্থাৎ অধিক স্টোরেজের জন্য HDD থাকবে আর ফাস্ট অ্যাপ্লিকেশন ওপেন, উইন্ডোজ ইনস্টল, যাবতীয় ফাস্ট কাজের জন্য থাকবে SSD ।

এছাড়া যে ব্যবহারকারীরা হাই গ্রাফিক্সের গেম খেলেন , যারা বড় বড় ভিডিও এডিট করেন , গ্রাফিক্সের কাজ করেন ও যারা বিপুল পরিমাণে ডাটা ও প্রোগ্রামিং নিয়ে কাজ করেন তারা SSD ব্যবহার করতে পারেন ।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন